বুধবার, জুন ২৩, ২০২১



সদ্য সংবাদ

  •   বাংলাদেশের সব খবর সহ আন্তর্জাতিক, বিনোদন, খেলার খবর ও অন্যান্য সব ধরণের খবর সবার আগে অনলাইনে পেতে চোখ রাখুন "টিএনএন" এ। আমাদের সাথে যুক্ত হতে পারেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।

বাংলাদেশ

জহিরুল ইসলাম মিলন টাঙ্গাইল (ধনবাড়ী)প্রতিনিধিঃ- টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে গতবছর করোনার প্রভাব যখন বেড়ে যায়, বাংলাদেশ সরকার যখন হিমশিম খাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায়, লকডাউন এ সকল কিছু বন্ধ সময়ে বিশেষ করে হসপিটালের রোগীদের জন্য রক্ত পাওয়া খুবই কঠিন হয়ে গিয়েছিল। ঠিক তখনই ধনবাড়ীর কিছু সাহসী তরুণ এগিয়ে আসেন  দেশের মানুষের জন্য কিছু করার ইচ্ছা  নিয়ে। সেই সময়েই তারা বিনামূল্যে রক্তদান  করার ইচ্ছার এগিয়ে আসলেন করোনা মহামারী মোকাবেলা করার জন্য কিছু সেচ্ছাসেবী তরুণ ।

এই চিন্তা ধারা থেকেই গত বছর লকডাউন এর সময় “ব্লাড ডোনার্স ফ্যামিলি ধনবাড়ী টাঙ্গাইল” নামে একটি বিনামূল্যে রক্ত দাতা সংগঠনটির পথ চলা শুরু করে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে।

করোনার সময় রক্তদাতা নিয়ে তারা ছুটে বেরিয়েছি উপজেলা জেলা এবং বিভাগীয় শহরে। ধনবাড়ী সরিষাবাড়ী, জামালপুর, মধুপুর, গোপালপুর, টাঙ্গাইল,  ময়মনসিংহ এবং ঢাকাতেও।

বিগত এক বছরে হতে আজ পর্যন্ত তাদের রক্তদানের সংখ্যা ২৭০। সময়ের সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে তাদের বিস্তৃতি বেড়েই চলছে। তাদের বর্তমান রক্তদাতা সেচ্ছাসেবী সদস্য ৫০০ উপরে। এরা সকলেই কোন না কোন ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো সর্বোচ্চ চেষ্টা করে।‌ থ্যালাসেমিয়া ক্যান্সার রোগী টিউমার অপারেশন রক্তশূন্যতা বিভিন্ন জটিল অপারেশন রুগীর জন্য নিয়মিত রক্তদান করে যাচ্ছে।

এ সময় ধনবাড়ী পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র মনিরুজ্জামান মনির বকল সাংবাদিকদের বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তি শালি করার জন্য তরুণদের ভূমিকা অপরিসীম । তরুণরাই এই দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে তাদের সাহসী ভূমিকাই দেশ উন্নয়নের শিখরে পৌঁছাবে। আজ ব্লাড ডোনার্স ফ্যামিলি ধনবাড়ী সাহসী তরুণরাই তার প্রমান। আমি তাদের সাথে থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো। ব্লাড ডোনার্রস ফ্যামিলি ধনবাড়ী টাঙ্গাইল এর এডমিন শহিদুল ইসলাম বলেন, সকাল বিকাল দুপুর কিংবা গভীর রাতেও রক্তদাতা নিয়ে ছুটে গিয়েছে হসপিটালে, রমজানের শুরুতে রাত্রি দশটার সময় ময়মনসিং মেডিকেল কলেজে রক্তদান নিয়ে গিয়েছিলাম। সামনের দিনগুলোতেও এভাবে কাজ চালিয়ে যাবো ইনশাল্লাহ। আজ আমি মধুপুর এ রক্তস্বল্পতায় আক্রান্ত এক বাবার জন্য রোজা রেখে রক্ত দান করে এসেছি। শুধু একটি উপজেলায় নয় আমরা আমাদের এই প্রচেষ্টা সামনে থেকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চেষ্টা করব।



সর্বশেষ

ফেসবুকে আমরা